Uncategorized

“বিজ্ঞান” ষষ্ঠ শ্রেণি ১৫তম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট এর উত্তর

Rate this post

"বিজ্ঞান" ষষ্ঠ শ্রেণি ১৫তম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট এর উত্তর
ষষ্ঠ শ্রেণি বিজ্ঞান ১৫তম সপ্তাহ অ্যাসাইনমেন্ট


“বিজ্ঞান” ষষ্ঠ শ্রেণি ১৫তম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট এর উত্তর – Science 15th week assignment for Class Six

নির্ধারিত কাজ:

"বিজ্ঞান" ষষ্ঠ শ্রেণি ১৫তম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট এর উত্তর
বিজ্ঞান ষষ্ঠ শ্রেণি ১৫তম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট

অর্ক ছােট একটা টবে পেঁয়াজ লাগিয়ে জানালার পাশে রােদের আলােতে রেখে দিয়েছে। কিছুদিন পর এর সবুজ পাতা। গজিয়ে বেশ বড় হয়েছে। সে বেশ পুলকিত হয়ে প্রতিদিন এটি পর্যবেক্ষণ করছে। তার বড় ভাই তাকে জানালাে যে, এখানে একটি বিশেষ প্রক্রিয়া ঘটছে যার মাধ্যমে পরিবেশে অক্সিজেন ছড়াচ্ছে। এ বিষয়টি পরীক্ষণের জন্য হাইড্রিলা উদ্ভিদ ব্যবহার করে অক্সিজেন বের হওয়ার ঘটনা দেখা যাবে।

 ১. এই বিশেষ প্রক্রিয়াটির নাম কী? কেন এটি শুধু সবুজ উদ্ভিদেই ঘটে?

২. সামগ্রিক প্রক্রিয়াটি দেখাও এবং অক্সিজেন বের হওয়ার, পরীক্ষণটি করার জন্য হাইড্রিলা উদ্ভিদ ব্যবহার করার সুবিধা ব্যাখ্যা কর।

৩. এই প্রক্রিয়াটি না ঘটলে প্রাণিকূলের জন্য হুমকিস্বরুপ হবে কিনা- যৌক্তিকতা নিরুপন কর।

“বিজ্ঞান” ষষ্ঠ শ্রেণি ১৫তম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট এর উত্তর

১. অর্ক যে পর্যবেক্ষণটি করছে তাঁর নাম সালোকসংশ্লেষণ। এটি একটি বিশেষ প্রক্রিয়া যা শুধুমাত্র সবুজ উদ্ভিদেই ঘটে। পৃথিবীর সমস্ত শক্তির উৎস হল সূর্য।  যে প্রক্রিয়ায় উদ্ভিদ সূর্যের আলোকে কাজে লাগিয়ে নিজের খাদ্য নিজে তৈরী করে তাকে সালোকসংশেষণ বলে। উদ্ভিদের সবুজ পাতায় প্লাস্টিড থাকে যা সালোকসংশেষণে অংশ নেয়। প্লাস্টিডের ভিতর সৌরশক্তি, পানি এবং কার্বন ডাই -অক্সাইড বিক্রিয়া করে অক্সিজেন ও গ্লুকোজ উৎপন্ন করে।  

সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়ার সময় কার্বন ডাই -অক্সাইড পাতার পত্ররন্দ্রের ভিতর দিয়ে পাতায় প্রবেশ করে।  এরপর সূর্যের আলোর উপস্থিতিতে ক্লোরোফিলের সাহায্যে পানি ও কার্বন ডাই -অক্সাইড বিক্রিয়া ঘটে ও গ্লুকোজ উৎপন্ন করে। 

২. সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়া: 

সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়ায় অক্সিজেন নির্গমনের পরীক্ষণ

পরীক্ষার উপকরণঃ একটা বিকার, একটা ফানেল, একটা টেস্টটিউব, পানি, সতেজ জলজ উদ্ভিদ হাইড্রিলা ও একটা দিয়াশলাই।

ধাপঃ বিকারটির দুই-তৃতীয়াংশ পানি দিয়ে পূর্ণ করি। সতেজ হাইড্রিলা উদ্ভিদগুলাে বিকারের পানিতে রেখে ফানেল দিয়ে এমনভাবে ঢেকে দেই যাতে হাইড্রিল উক্তিগুলোর কাণ্ড ফানেলের নলের উপরের দিকে থাকে। এরপর বিকারে আরও পানি ঢালি যাতে ফানেলের নলটা সম্পূর্ণভাবে পানিতে ডুবে থাকে। এবার টেস্টটিউবটা পানি দিয়ে পূর্ণ করে বৃদ্ধাঙ্গুল দিয়ে বন্ধ করে ফানেলের নলের উপর এমনভাবে উল্টিয়ে দিই যাতে টেস্টটিউবের পানি বের না হয়ে যায়। এরপর এসব কিছুকে সূর্যালােকে রাখি। 

পর্যবেক্ষণঃ কিছুক্ষণ পর দেখতে পাব হাইড্রিলা উদ্ভিদগুলাের কারে প্রান্ত দিয়ে বুদবুদ আকারে গ্যাস বের হয়ে টেস্টটিউবে জমা হচ্ছে এবং টেস্টটিউবের পানি নিচে নেমে যাচ্ছে। টেস্টটিউবটা প্রায় সম্পূর্ণটা গ্যাসে পূর্ণ হলে, দিয়াশলাইয়ের একটা সদ্য নিবন্ত কাঠি টেস্টটিউবের মুখে প্রবেশ করালে, নিবন্ত কাঠিটি দপ করে জ্বলে উঠলো। এর কারণ কি? কারণ হল অক্সিজেন। আমরা জানি অক্সিজেন ছাড়া আগুন জ্বলে না আর উদ্ভিদ কার্বন ডাই-অক্সাইড গ্রহণ করে এবং অক্সিজেন ত্যাগ করে। টেস্টটিউবে অক্সিজেন জমার কারণে নিবন্ত কাঠিটি জ্বলে উঠলো। 

একটি সমীকরণের সাহায্যে সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়াটি দেখানো হল: 

6CO2 + 12H2O +তাপ→ C6H12O6+6H2O+6O2 

সালেকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়া ২টি পর্যায়ে সম্পন্ন হয়-

১. আলোক নির্ভর পর্যায়

২. অন্ধকার পর্যায়

সালোকসংশ্লেষণের সামগ্রিক প্রক্রিয়াটি হল: 

সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়া হাইড্রিলা ব্যবহারের কারণঃ হাইড্রিলা  এক ধরনের জলজ উদ্ভিদ। যা যা দ্বারা সালোকসংশ্লেষণে অক্সিজেন নির্গমন পরীক্ষা করা হয়। এদের দেহ সম্পূর্ণভাবে পানিতে নিমজ্জিত থাকে। হাইড্রিলা মূলের সাহায্যে মাটির সাথে আবদ্ধ থাকে, সে জন্য হাইড্রিলাকে মূলাবদ্ধ নিমজ্জিত জলজ উদ্ভিদ বলা হয়ে থাকে। এরা পানির মধ্যে থেকে সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করতে পারে কিন্তু অন্য কোনো উদ্ভিদ তা পারে না। 

৩. সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়া উদ্ভিদ ও প্রাণী জগতের জন্য আশীর্বাদস্বরূপ। সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে পরিবেশে গ্যাসের বিনিময় তৈরি হয়। ফলে জীব ও উদ্ভিদ জগতের মধ্যে একটি সেতুবন্ধন তৈরি হয়। 

সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়া না হলে তা প্রাণীকূলের জন্য হুমকিস্বরূপ। কারন আমাদের বেঁচে থাকার জন্য অক্সিজেনের প্রয়োজন। আর এই অক্সিজেন আমরা পাই উদ্ভিদ থেকে। আর আমরা জানি উদ্ভিদ সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে অক্সিজেন নির্গত করে এবং কার্বন ডাই-অক্সাইড গ্রহণ করে। 

তাছাড়া, বেঁচে থাকার জন্য উদ্ভিদ ও প্রাণী জগত উভয়েরই খাদ্যের প্রয়োজন। আর খাদ্যের সাথে শ্বসনের নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে। শ্বসনের ফলে শক্তি নির্গত হয়। সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়া পরিবেশের কার্বন ডাই-অক্সাইড ও অক্সিজেনের ভারসাম্য রক্ষা করে।  শুধু তাই নয় প্রাণী জগতের জন্যে কার্বন ডাই-অক্সাইড ক্ষতিকর। উদ্ভিদ সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে এই বিষাক্ত গ্যাস গ্রহণ করে। 

উপরের আলােচনা থেকে এ কথা বলা যায় যে জীবনের অস্তিত্ব সম্পূর্ণ নির্ভর করে সালােকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়ার উপর । সালােকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়া বন্ধ হলে মানব সভ্যতা নিঃসন্দেহে ধ্বংস হবে। সে কারণে আমাদের উদ্ভিদ রক্ষায় আরও সচেতন হতে হবে।

এই ছিল তোমাদের বিজ্ঞান ষষ্ঠ শ্রেণির ১৫তম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট এর উত্তর আশা করি উত্তরটি তোমাদের উপকারে আসবে।


 এই রকম আরও তথ্য পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন। এর পাশাপাশি গুগল নিউজে আমাদের ফলো করুন। 

Rimon

This is RIMON Proud owner of this blog. An employee by profession but proud to introduce myself as a blogger. I like to write on the blog. Moreover, I've a lot of interest in web design. I want to see myself as a successful blogger and SEO expert.

মন্তব্য করুন

Back to top button