Uncategorized

যাতায়াত ব্যবস্থার দুরবস্থা সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন

Rate this post

যাতায়াত ব্যবস্থার দুরবস্থা সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন
যাতায়াত ব্যবস্থার দুরবস্থা সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন


 

তােমার এলাকার যাতায়াত ব্যবস্থার দুরবস্থা সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন রচনা কর।

আমনুরা-রহনপুর সড়ক চলাচলের অযােগ্য

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার আমনুরা থেকে গােমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর পর্যন্ত দীর্ঘ বাইশ কিলােমিটার রাস্তা যানবাহন ও লােক চলাচলের অযােগ্য হয়ে পড়েছে। উপজেলার সাথে জেলা সদরের সড়কপথে যােগাযােগের এটিই একমাত্র রাস্তা। সড়কটির গুরুত্ব সহজেই অনুমেয়। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থেকে বারাে কিলােমিটার দূরে মল্লিকপুর নামক একটি প্রসিদ্ধ বাণিজ্যকেন্দ্র এই সড়কের পাশে অবস্থিত। এখানে শনিবার ও বুধবার, সপ্তায় দু’দিন বিশালাকারের হাট বসে। দূর-দূরান্তে র নানা পেশার মানুষের আগমন ঘটে এই হাটে। অথচ সড়কটির দুরবস্থা বর্ণনাতীত। দীর্ঘদিন সংস্কারের অভাবে ইঞ্জিন চালিত যানবাহন চলাচল প্রায় বন্ধ। ভগ্নদশার দু’একটি মিনিবাস দু’এক ঘণ্টা অন্তর যাতায়াত করে বটে কিন্তু সেক্ষেত্রে যাত্রী সাধারণের জীবনের ঝুঁকি থাকে অত্যন্ত বেশি। পাশাপাশি দুটি বাস পরস্পরকে অতিক্রম করার সময় বিপদের প্রচুর সম্ভাবনা থাকে। রাস্তার সংকীর্ণতা এর জন্য দায়ী। পরস্পরকে অতিক্রমকারী গাড়ি দুটির অর্ধাংশ সম্পূর্ণ কাঁচা রাস্তায় নামিয়ে দিতে হয়।

আধুনিক পণ্য পরিবহণ ব্যবস্থায় ট্রাকের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অথচ এই দীর্ঘ সড়কটি ট্রাক চলাচলের সম্পূর্ণ অযােগ্য হয়ে পড়েছে। আমনুরা হাটে প্রচুর পরিমাণে তরিতরকারি ও অন্যান্য কাঁচামালের আমদানি ঘটে। পরিবহণ ব্যবস্থার কারণে এসব কাঁচামাল অন্যত্র যেতে পারে না। এতে স্থানীয় উৎপাদক ও কৃষকবৃন্দ ক্ষতিগ্রস্ত হন, সেই সাথে দূরবর্তী এলাকার মানুষ এখানকার উৎপাদিত পণ্যসামগ্রী ভােগের সুবিধা থেকে বঞ্চিত হন। স্থানীয় কৃষকবৃন্দ উৎপাদনের উৎসাহ হারিয়ে ফেলেন।

উপজেলা সদরের সাথে জেলা সদরের যােগাযােগ প্রশাসনিক কারণেও গুরুত্বপূর্ণ। সরকারি কর্মকর্তাবৃন্দের সাচ্ছন্দ্যে যাতায়াতে সড়কটি প্রধান অন্তরায়। শুকনাে মৌসুমে কোন রকমে গাড়ি চলাচল করলেও বর্ষাকালে এই সড়কটি যে চেহারা ধারণ করে তা এককথায় ভয়ংকর। ভারী যানবাহন তাে দূরের কথা, সাইকেল-রিকশা-ভ্যানও চলতে পারে না। বুকে পানি নিয়ে অদৃশ্য গর্তসমূহ লুকিয়ে থাকে পথচারী পদাতিক পথিকও মাঝেমধ্যে সেখানে পতিত হন। এহেন অবস্থা আজকের নয় বা একদিনে এই দুরবস্থা আসেনি। 

স্বাধীনতা পরবর্তী ৫০ বছরে মাত্র একবার সড়কটির প্রতি সরকারে শুভদৃষ্টি পড়েছিল, পাচ কিলােমিটার রাস্তা সংস্কারের পর অজ্ঞাত কারণে তা বন্ধ হয়ে যায়। এরপর থেকে অত্র এলাকাবা যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে বার বার বিষয়টি উত্থাপন করে কোনাে সুফল না পেয়ে দারুণভাবে হতাশাগ্রস্ত। হতাশা থেকে ক্ষোভ দানাবেঁধে উঠছে জনমনে, উপজেলা সদরে মিছিল করে সেই ক্ষোভের প্রকাশও তারা ঘটিয়েছে। কিন্তু কর্তৃপক্ষে নীরব উদাসীনতায় তাতে সামান্য ফাটল ধরেনি। এলাকাবাসীর একান্ত কামনা, যথাযথ কর্তৃপক্ষ বিষয়টিকে গুরুত্বসহ বিচার করবেন এবং যথাশীঘ্র সম্ভব সড়কটি পুনঃনির্মাণে সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

প্রতিবেদকঃ
মোঃ আমিন রসুল

প্রতিবেদকের নামঃ মোঃ আমিন রসুল
প্রতিবেদনের শিরোনামঃ আমনুরা-রহনপুর সড়ক চলাচলের অযােগ্য
প্রতিবেদন তৈরি সময়ঃ সকাল ১০ টা
তারিখঃ ১২ নভেম্বর ২০২১


 এই রকম আরও তথ্য পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন। এর পাশাপাশি গুগল নিউজে আমাদের ফলো করুন। 

Rimon

This is RIMON Proud owner of this blog. An employee by profession but proud to introduce myself as a blogger. I like to write on the blog. Moreover, I've a lot of interest in web design. I want to see myself as a successful blogger and SEO expert.

মন্তব্য করুন

Back to top button